আমাদের পরিচিতি

প্রযুক্তিকে সাথে নিয়ে করছি সব সম্ভব

বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষদের শক্তিশালী নেটওয়ার্কের মাধ্যমে সংযুক্ত করার লক্ষ্যে ১৯৯৭ সালের ২৬ মার্চ থেকে যাত্রা শুরু করে গ্রামীণফোন। সময়ের সাথে সাথে প্রযুক্তি ও অবকাঠামোগত নানা পরিবর্তন আসলেও গ্রামীণফোন সবসময় ক্ষমতায়নের মাধ্যমে সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে সামনের দিকে।

কারণ আমরা বিশ্বাস করি প্রযুক্তি সাথে থাকলেই সব সম্ভব। আর এই প্রযুক্তির শক্তিতে আমরা মানুষের স্বপ্নকে বাস্তবে রূপান্তরিত করতে পারি।

দেশজুড়ে সবচেয়ে দ্রুত ও নিরবচ্ছিন্ন ইন্টারনেট পৌঁছে দিতে আমরা স্থাপন করেছি সবচেয়ে বেশি সংখ্যক 4G টাওয়ার। এদেশের মানুষের দৈনন্দিন জীবনের সমস্যাগুলো সমাধান করতেই নেওয়া হয় এই উদ্যোগ। নেটওয়ার্ক সৃষ্টির আমাদের এই প্রচেষ্টা এখানেই শেষ নয়। এদেশের জেলেদের মত চ্যালেঞ্জিং পেশাজীবী মানুষ; মাঝসমুদ্রে মোবাইল নেটওয়ার্ক যাদের জীবন বাঁচাতে পারে, তাদের জন্য আমরা নিয়ে এসেছি ‘ডিপ সি নেটওয়ার্ক’ (Deep Sea Network)। 4G শক্তিতে আমরা এভাবেই সব মানুষকে সাথে নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই।

ইন্টারনেটই শক্তি। আর শক্তি সব সময় দায়িত্বগুলো আরও বাড়িয়ে দেয়। এই দায়িত্ববোধ থেকেই আমরা হাতে নিয়েছি ‘চাইল্ড অনলাইন সেইফটি’ (Child Online Safety) শীর্ষক উদ্যোগ, যার মাধ্যমে আমরা নিশ্চিত করছি শিশুদের অনলাইন সুরক্ষা। প্রযুক্তিগত সমাধান প্রদানের মাধ্যমে সবার জীবনকে আরও বেশি সুবিধাজনক করে তুলতে আমরা এনেছি ‘আইওটি’ (IoT)। ‘গ্রামীণফোন এক্সিলারেটর’ (Grameenphone accelerator)-এর মাধ্যমে সারাদেশের উদ্যোক্তাদের সহযোগিতা, প্রশিক্ষণ ও নতুন অবকাঠামো তৈরি করে দেওয়ার মাধ্যমে আমরা ভবিষ্যতের জন্য তৈরি করছি একটি ডিজিটাল ইকোসিস্টেম। আর আমাদের সকল গ্রাহকদের জন্য রয়েছে সেরা সেল্‌ফ সার্ভিস অ্যাপ্লিকেশন ‘মাইজিপি’–(MyGP)। যা গ্রাহকদের দিয়েছে তাদের পছন্দমতো গ্রামীণফোন সার্ভিসগুলো বেছে নেওয়ার সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ। এভাবেই প্রতিনিয়ত উন্নয়নের মাধ্যমে আমরা গ্রাহকদের হাতের মুঠোয় পৌঁছে দিচ্ছি নিত্য নতুন উদ্ভাবন।

গ্রামীণফোন-এর কিছু উল্লেখযোগ্য তথ্য

  • দেশের প্রথম প্রিপেইড সার্ভিস প্রদানকারী নেটওয়ার্ক অপারেটর।
  • বর্তমানে সারাদেশে সর্বাধিক সংখ্যক 4G টাওয়ার
  • 2G/3G/4G প্রযুক্তি নিয়ে আসা দেশের প্রথম নেটওয়ার্ক অপারেটর
  • বধিরদের জন্য নিয়ে এসেছে ভিডিও কলিং গ্রাহক সার্ভিস যার নাম ‘সাইনলাইন’ ­(Signline)
  • বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ৯৯.৬% মানুষকে নেটওয়ার্কের আওতায় আনা।
  • গ্রামীণফোন-এর ‘ফ্লেক্সিপ্ল্যান’-ই প্রথম গ্রাহক সার্ভিস, যেখানে গ্রাহক তার প্রয়োজন অনুযায়ী প্ল্যান সাজানোর সুযোগ পেয়েছে।

 

grameenphone