শিশুদের অনলাইন নিরাপত্তা

সবার জন্য অর্থবহভাবে এবং নিরাপদে ডিজিটাল জগতে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে গ্রামীণফোন। প্রাথমিকভাবে, অনলাইনে যোগাযোগের ক্ষেত্রে শিশুদের নিরাপদ রাখা এবং অনলাইনে যোগাযোগের ঝুঁকি সম্পর্কে সবাইকে অবহিত করা প্রয়োজন। এরপর, মৌলিক কিছু নিয়মাবলী যেমন, পাসওয়ার্ড সুরক্ষিত রাখা এবং ব্যক্তিগত তথ্য সংরক্ষণ সম্পর্কে সকলের জানা উচিত। এছাড়াও অভিভাবকদেরও অনলাইন জগৎ এবং কোন ক্ষেত্রে কী ধরণের ঝুঁকি বিদ্যমান সে সম্পর্কে জানা উচিত। এই ব্যাপারে সচেতনতা গড়ে তুলতে গ্রামীণফোন, টেলিনর  এবং ইউনিসেফ  যৌথভাবে অভিভাবকদের জন্য একটি নির্দেশিকা তৈরি করেছে।পাশাপাশি, ২০১৪ সাল থেকে গ্রামীনফোন সারাদেশে বিভিন্ন স্কুলে ইন্টারনেট সম্পর্কিত সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি পরিচালনা করছে। সেইসাথে, মা-বাবা ও শিক্ষক-শিক্ষিকাদের এব্যাপারে সচেতন করার কার্যক্রমও পরিচালিত হচ্ছে। এপর্যন্ত গ্রামীনফোনে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছয়শোর বেশি স্কুলে ১,৪০,০০০ ছাত্র-ছাত্রীর কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিয়েছে এবং ৩৫,০০০ শিক্ষক এবং অভিভাবককে এই কার্যক্রমে সরাসরি যুক্ত করেছে।

Digi World

  image2 image2

  image2

  

শিশুর প্রতি যে কোনো সহিংসতা বা নির্যাতনের তথ্য জানাতে ফোন করুন ১০৯৮ এ।

grameenphone